একাদশ শ্রেণীতে চট্টগ্রাম বোর্ডে খালি ৩০ হাজার আসন

Print This Post Email This Post

চলতি শিক্ষাবর্ষে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের অধীন কলেজগুলোতে একাদশ শ্রেণীতে প্রায় ৩০ হাজার আসন খালি থাকবে।

মোট আসন সংখ্যার বিপরীতে এসএসসি পরীক্ষায় পাশ করা শিক্ষার্থীর সংখ্যা কম হওয়ায় এসব আসন খালি থাকবে বলে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক সুমন বড়–য়া জানান।

সুমন বড়–য়া বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, সরকারি ও বেসরকারি কলেজে উচ্চ মাধ্যমিকে মোট আসন সংখ্যা ৯০ হাজার ৩১০। এবার এসএসসিতে সব বিভাগ মিলিয়ে পাশ করেছে ৬০ হাজার ৫২১ জন শিক্ষার্থী। ফলে ২৯ হাজার ৭৮৯ টি আসন খালি থেকে যাচ্ছে।

এবারের এসএসসি পরীক্ষায় চট্টগ্রামে ৯২১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মোট ৭৭ হাজার ৩২৫ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেয়।

চট্টগ্রামে সরকারি ও বেসরকরি মিলিয়ে মোট কলেজ রয়েছে ১৯৫টি। এরমধ্যে সরকারি কলেজ মাত্র ২০টি। বাকি ১৭৫টিই বেসরকারি।

সরকারি কলেজগুলোর মধ্যে ১৫টি সহশিক্ষা এবং পাঁচটি মহিলা কলেজ। এই কলেজগুলোতে মানবিক-বিজ্ঞান-ব্যবসায় শিক্ষা মিলিয়ে মোট আসন সংখ্যা ১৩ হাজার ২১০।

বেসরকারি কলেজগুলোর মধ্যে ১৪৮টি সহশিক্ষা এবং ২৯টি মহিলা কলেজ রয়েছে। বেসরকারি কলেজগুলোতে সব বিভাগ মিলিয়ে রয়েছে ৭৭ হাজার ১০০টি আসন।

সরকারি কলেজের ১৩টিই নগরীর বাইরে বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় অবস্থিত।

এবার শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেয়েছে চার হাজার ৮১৯ জন পরীক্ষার্থী। এ গ্রেড পেয়ে পাস করেছে ১৭ হাজার ৬৮৩ জন।

সুমন বড়–য়া বলেন, চট্টগ্রামে সামগ্রিকভাবে আসন সংকট নেই। কিন্তু বেশিরভাগ শিক্ষার্থী নগরমুখী হওয়ায় শহরের কলেজগুলোর উপর চাপ বেড়েই চলেছে।

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ শেখর দস্তিদার শিক্ষার্থীদের শহরমুখী মনোভাবকেই দায়ী করেন। তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, যে কোন কলেজে ভর্তি হয়ে নিয়মিত অধ্যবসায়ের মাধ্যমে প্রস্তুতি নিলে ভাল ফল করা যায়।

কলেজ পরিদর্শক সুমন বড়–য়া জানান. তিন পার্বত্য জেলায় শিক্ষার্থীর সংখ্যার তুলনায় দ্বিগুণ আসন রয়েছে। তবুও শিক্ষার্থীরা নগরমুখী। নগরীর বাইরের কলেজগুলোতে শিক্ষার মান বাড়ানো হলে প্রত্যেকে নিজ এলাকায় পড়তে আগ্রহী হবে। কিছু নির্দিষ্ট কলেজে ভিড়ও কমবে।

পাঠকের মন্তব্য

বাংলা (ইউনিকোডে) অথবা ইংরেজীতে আপনার মন্তব্য লিখুন:

কীবোর্ড Bijoy      UniJoy      Phonetic      English
নাম: *
ই-মেইল: *
মন্তব্য: